প্রত্যাহিক জীবন সাথে মূল্যহীন এলোমেলো কিছু কথা!

😀 ইয়ো গাইজ!😛 সবাই কেমন আছেন? অবশ্যই ভালো থাকারই কথা!🙂 আমিও ভালো আছি। তবে, আমার এই ব্লগকে অনেকেই ভুলতে বসেছেন এটা নিশ্চিত। তাই, আমি আপনাদের মাঝে বেঁচে আছি সেটা আবারো একটু মনে করিয়ে দিতে অনেক দিন পর কী-বোর্ড নিয়ে ব্লগ লিখতে বসলাম। তবে এটা কোন টেঁকি লিখা হবে না সেটা আপনারা টাইটেল দেখেই বুঝার কথা!😉

এলোমেলো কথা বলার আগেই বলে রাখা ভালো। আমার এই ব্যক্তিগত ব্লগে পরবর্তি থেকে আর কোন টেক রিলেটেড লিখা পোস্ট করবো না। তাই আমার পরবর্তি টেক রিলেটেড যেকোনো লিখাগুলো পাবেন রংপুরসোর্স ব্লগে

এবার চলুন এলোমেলো কথায়…

যখন থেকে লিখালিখি করা শুরু করি তখন থেকেই এটা আমার নেশাতে পরিনত হয়, অবশ্য এর পর পেশা হিসেবেও রুপ লাভ করে।😉 তবে আপনার অনেকেই জানবেন আমি প্রায় ১ মাসেরও বেশি সময় ধরে তেমন কোন ব্লগ পোস্ট লিখি নাই। এই ব্লগটির কথাই ধরুন। যেখানে মাসে ১৫-২০টা পোস্ট লিখতাম সেখানে গত মাসে মাত্র! আপনারাই দেখুন!😦

আসলে ব্লগ যারা লিখে নিয়মিত তাদের লিখালিখি ছেড়ে থাকতে কতটা কষ্ট হয় সেটা বুঝতেছি এখন। অন্তত্য আমার কষ্ট হচ্ছে। কারণ ব্লগ লিখার মাধ্যমে আমি আমার সকল কথা সবার সাথে নির্দিধায় শেয়ার করতে পারি। এখানে কারো অনুমতি লাগে না, থাকেনা কোন বাঁধা। অনেকেই বলে বসবেন হয়তো তাহলে আমার বাঁধা কোথায়? আরে ভাই বাঁধা কি আমি নিজে করছি নাকি?😉 বাঁধা পাইতেছি … কখনও সময়ের অপ্রতুলটা, কখন অন্যদের সময় দিতে গিয়ে নিজের কাজের সময় হারায় ফেলি! এইতো জীবন!😦

ব্যস্ততা বলতে গেলে অনেক কম এবার অনেক বেশি! কিভাবে একটু দেখেন… প্রতিদিন রাতে ঘুমাই ১.৩০-২.০০টায়। ঘুম থেকে উঠি কখনও ৯টা কখনোবা ১০টা কখনোবা আরও বেশি লেট ( অলস বলে কথা!😛 ) !!!!😀 নিয়মিত গোসল, ফ্রেস হওয়া, নাস্তা করা এর পর রবি, মঙ্গল, বৃহস্পতিবার আমার একাউন্টিং প্রাইভেট পড়তে হয় মানে আমি নিজে পড়ি আরকি!! অনেকেই জানেন না আমি আসলেই স্টুডেন্ট নাকি জব করি! এবার বুঝলেন তো???😛 এর পর কারেন্ট মামা থাকলে পিসিতে বসি নয়তো মোবাইল ঘুটঘাট।

এভাবে এদিক সেদিক করে দুপুর ১টা পার। যথা নিয়মিত নামাজ আদায় করি! ও হ্যাঁ, ফজররের নামাজটা প্রায়ই ক্বাযা হয়ে যায়।😦 তাই প্রথমে বলতে ভুলে গেছি!😛 এরপর দুপুরের ভোজ সারি। বেশি না অল্পই খাই!😀 এরপর আবারো কারেন্ট না থাকলে টানা ২/২.৩০ ঘন্টা ঘুম! প্রতিদিন না মাঝে মাঝে!😛 যথারীতি ঘুম থেকে উঠে নামাজ তারপর হাল্কা নাস্তা করে বাসার ছাদে উঠে বসি। কখনও সঙ্গি হয় গল্পের বই, কখনও আনমনে কথা বলি আমার নিজের মনের সাথেই।🙂 তবে বেশির ভাগ সময়ই বন্ধু বান্ধুবিদের সাথে ফোনালাপ করেই বিকেল পার করি। এতে অন্যরকম আনন্দ পাই।

এরপর সন্ধায় নামাজ এর পরপরই কাজে বসে যাই। আসলে সারাদিনে যে হারে কারেন্টের জ্বালাতন তাতে আমার আর নতুন করে কি বলার থাকতে পারে ???😦 কাজ করার ফাঁকেই এশা’র নামাজ। এরপর আবারো পিসি অন!😉 উফস!!! সারাদিনেই পিসিতে থাকি। এক বিন্দুও ক্লান্তি নাই!😀😀 আর আপনার? মাঝে মাঝে এরওর প্রবলেম এর সল্যুশন দিতে বিরক্ত হয়ে যাই। তখন আর কি করার… চোখে অন্ধকার দেখি!😉 হ্যাঁ হ্যাঁ হ্যাঁ!!! কি বুঝলেন?

আমার রাতের খাবারের টাইম হয়ে গেছে। খেয়ে এসে বাকী লিখা লিখে পোস্ট দিতেছি!😉



হম! প্রায় ২০ মিনিট পর আবারো লিখতে বসলাম।😉 আহারে লিখার নেশায় ঠিক মতো খাইতেও পারলাম না !!😦😛

এইতো রাত ১১তা বাজে!😉 প্রতিদিনের মতো রাত ১০তার পর আমার কোন কাজ থাকে না তেমন। আজকে আর নাই!😀 তাই ব্লগ পোস্টটি লিখতে বসা!🙂

এভাবে করে রাত ১২/১২.৩০ পর্যন্ত পিসিতে থাকবো তারপর আবারো মোবাইলে। নিছক মজা করবো এরওর সাথে তারপর শান্তির ঘুম দিবো! পরের দিন কিভাবে যাবে সেটা কি আর বলার অপেক্ষা রাখে?😉
এইতো সাদামাটা আমার প্রত্যাহ জীবন। হয়তো কখনও সামান্য পরিবর্তন থাকে। কখনও হাঁসি, কখনও কাঁদি, এভাবেই চলছি, চলবো। এভাবেই হারিয়ে যাবো একসময় প্রকৃতির নিয়মে, সেই অনন্তকালের পরকালে!🙂

প্রিয় পাঠক! আমি জানি এই পোস্টটি পড়ে আপনাদের ১ বিন্দুও লাভ হবে না আমি জানি। কারণ পোস্টটি সম্পুর্ন আমা কান্দ্রিক! কতই আর টেক কেন্দ্রিক লিখবো। যান্ত্রিকতার মাঝেও যে প্রাণ খুলে কথা বলার ইচ্ছা জাগে। তাই আমার এই ছোট্ট ব্লগ বাড়ীটিতে এলোমেলো কথা দিয়ে সাজানো। আপনি আসবেন বা না আসবেন এটা আপনার ইচ্ছার উপরে। তবে আমি লিখে চলবো আমার যত না বলা কথা শুধু প্রাণের ক্ষুধা মিটাতে।🙂

আজ এই পর্যন্তই! দেখা হবে আগামী কোন পোস্টে!

সেই পর্যন্ত সবাই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন।

শুভ রাত্রি!🙂

4 thoughts on “প্রত্যাহিক জীবন সাথে মূল্যহীন এলোমেলো কিছু কথা!

মন্তব্য প্রদান করুন ...

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s